বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল, ২০২০ ইং, ২৬ চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
আজ বৃহস্পতিবার | ৯ এপ্রিল, ২০২০ ইং

জেড. এইচ. সিকদার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা ও উদ্ভাবন বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত

বৃহস্পতিবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২০ | ৯:১৩ পূর্বাহ্ণ | 47 বার

জেড. এইচ. সিকদার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা ও উদ্ভাবন বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত

২৯ জানুয়ারী বুধবার শরীয়তপুর জেলার জেড. এইচ. সিকদার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে প্রথম জাতীয় সেমিনার “রিসার্চ এন্ড ইনোভেশন: বাংলাদেশ পার্সপেক্টিভস” অনুষ্ঠিত হয়। অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদ উক্ত সেমিনারের আয়োজন করে।
সেমিনারে মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক্স বিভাগের প্রফেসর (গ্রেড-০১) ড. মোঃ নুরুন্নবী মোল্লা।
উক্ত সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর ড. মো: আমিনুল হক ভূইয়া, উপাচাযর্, জেড. এইচ. সিকদার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সম্মানিত ডীন জনাব মোঃ এমরান পারভেজ খান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব সনেট কুমার সাহা। অনুষ্ঠান সঞ্চালন করেন কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের বিভাগীয় প্রধান জনাব মোঃ রহিম উদ্দিন। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সকল বিভাগের সম্মানিত শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ।
প্রধান অতিথি তার আলোচনায় বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় হলো সার্বজনীন জ্ঞান আহরণ ও গবেষণার অন্যতম বিদ্যাপীঠ। এ ধরণের সেমিনারের মাধ্যমে শিক্ষক-শিক্ষাথীদের জ্ঞান চর্চার দ্বার উন্মুক্ত হয়। প্রধান অতিথি এ ধরণের অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য সংশ্লিষ্টদের সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
মুল প্রবন্ধ উপস্থাপক ড. মোঃ নুরুন্নবী মোল্লা স্বাগত বক্তব্যে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্বৃতি দিয়ে তাঁর অভিজ্ঞতার আলোকে বলেন, একমাত্র গবেষণাই হলো বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার অন্যতম ভিত্তি।
বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে গবেষণার ও গবেষকদের বর্তমান অবস্থা, ভবিষ্যতে গবেষণার বিভিন্ন ক্ষেত্র এবং চ্যালেঞ্জের উপর আলোকপাত করেন। এ প্রেক্ষিতে গবেষণার জন্য অর্থায়নের বিষয়টিও তুলে ধরেন। তিনি আরো বলেন, বর্তমানে তথ্য প্রযুক্তির বিকাশ এবং ইন্টারনেটের সহজলভ্যতার জন্যে আমরা গ্লোবাল ভিলেজে প্রবেশ করেছি এর ফলে বিভিন্ন উন্নত দেশের গবেষণাপত্র এবং বই পুস্তক বাংলাদেশের শিক্ষক শিক্ষাথীদের জন্য সহজলভ্য হয়ে উঠেছে। যার পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশে সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক-শিক্ষাথীদের গবেষণার নতুন নতুন ক্ষেত্রও তৈরী হয়েছে।
মুল প্রবন্ধের বিষয়বস্তুকে কেন্দ্র করে অন্যান্য শিক্ষকদের মধ্য থেকে গবেষণাপত্র উপস্থাপন করেন অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের লেকচারার জনাব ড. হোসাইন মোহাম্মদ জাকির, শ্রাবনী মজুমদার এবং আয়েশা তাজরিন। ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক বিভাগের বিভাগীয় প্রধান জনাব সনেট কুমার সাহা এবং লেকচারার জনাব মোঃ মাজহারুল ইসলাম। সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের বিভাগীয় প্রধান জনাব মোঃ জোহুর-উজ-জামান এবং লেকচারার নিশাত আনজুম। কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের লেকচারার জনাব সুদেব বাবু সেন অমিত এবং নিতুন চন্দ্র পোদ্দার। শিক্ষকদের মাধ্যমে উপস্থাপিত গবেষণাপত্র জুরীবোর্ডে কর্তৃক মূল্যায়ন করা হয়। জুরীবোর্ডের মূল্যায়নে প্রথম স্থান অধিকার করেন কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের লেকচারার জনাব আয়েশা তাজরিন।
দিনব্যাপী এ আয়োজন সকলের উপস্থিতি ও সহযোগিতার মাধ্যমে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়।

সংবাদটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন
Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedInPrint this page

মন্তব্য

comments


সর্বশেষ  
জনপ্রিয়