রবিবার, ৭ মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২২ ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
আজ রবিবার | ৭ মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নড়িয়া পৌরসভার নাগরিকদের সকল সুযোগ-সুবিধা প্রদানে কাজ করে যাবো : সৈয়দ রিন্টু

বুধবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২১ | ১০:১৮ পূর্বাহ্ণ | 39 বার

নড়িয়া পৌরসভার নাগরিকদের সকল সুযোগ-সুবিধা প্রদানে কাজ করে যাবো : সৈয়দ রিন্টু

নড়িয়া পৌরসভার নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বি.এন.পি) ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে মেয়র পদে বিজয়ী হতে পারলে পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের নাগরিকদের সকল সুযোগ-সুবিধা প্রদানে কাজ করে যাবো ইনশাআল্লাহ্। নড়িয়া পৌরসভাকে ডিজিটাল ও মডেল পৌরসভা হিসেবে গড়ে তুলতে চাই।

একান্ত সাক্ষাৎকারে এমনটাই বলছিলেন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বি.এন.পি) ধানের শীষ প্রতীকের নড়িয়ার মেয়র প্রার্থী সৈয়দ রিন্টু।

তিনি বলেন, সব এলাকার উন্নয়নে কাজ করাই আমার দায়িত্ব। সবাইকে নিয়ে পদ্মার ভাঙন কবলিত নড়িয়া পৌরসভাকে একটা ডিজিটাল ও মডেল পৌরসভা হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। আমার প্রথম কাজ পৌরবাসীর বিশুদ্ধ পানির সংকট দূর করা ও পদ্মায় ভাঙন কবলিত মানুষের জন্য কাজ করা। আর এর জন্য আমি আমার সর্বশক্তি দিয়ে কাজ করে যাব।

তিনি আরও বলেন, স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উন্নয়ন ও টিকাদান কর্মসূচি সরকার কর্তৃক প্রদেয় যেকোনো ধরনের সুবিধা প্রদান, সংক্রামক ব্যাধি প্রতিরোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করে কার্যকর ভূমিকা পালন, উন্নত বিশ্বের মতো স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, বিভিন্ন সংস্থা সাথে নিয়ে বছরব্যাপী মশা নিধন কার্যক্রম বাস্তবায়ন, বর্জ্য অপসারণ, জলাবদ্ধতা দূরীকরণসহ অপসারিত বর্জ্যের পূনঃব্যবহার পরবর্তী আবর্জনা চূড়ান্ত গ্রাউন্ডে ফেলে দেয়া, পৌর এলাকার মহিলা ও পুরুষদের জন্য পৃথক পৃথক শৌচাগার নির্মাণ এবং সরকারি কিংবা বেসরকারি উদ্যোগে পরিচ্ছন্ন রাখা, শহর এলাকার পানি নিষ্কাশনের জন্য ড্রেনেজ পরিষ্কারের মাধ্যমে ড্রেনেজ গুলির কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করা, ওয়ার্ড ভিত্তিক বৃক্ষরোপন কর্মসূচী বাস্তবায়ন এর মাধ্যমে পরিবেশের উন্নয়ন করা, অসুস্থ চিন্তা দূরীভুত করে নারী শিক্ষার অগ্রগতিকে প্রভাবিত করা, ইভটিজিং, যৌতুক প্রথা, বাল্যবিবাহ, কুসংস্কার ইত্যাদি দূরীকরণ।

তাছাড়া সড়ক নির্মাণ, সংস্কার ও রক্ষণাবেক্ষণের মাধ্যমে যাতায়াতের উপযোগী রাখা, পৌর শহরের বাসিন্দারা রাস্তাঘাটে চলতে গেলে নানা রকম বাধার সম্মুখীন হন, বিভিন্ন যানবাহনের যত্রতত্র অবস্থানের কারণে, সরু রাস্তা দিয়ে চলাচলের কারণে দুর্ঘটনার শিকার হন এমনকি প্রাণহানি ঘটে, সে ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট স্থানে পার্কিংয়ের ব্যবস্থা করা এবং দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা মোতাবেক সরু রাস্তা প্রশস্তকরণ, শহরের বিভিন্ন এলাকায় সড়কবাতির ব্যবস্থা, মানসিক বিকাশের জন্য দৃষ্টিনন্দন উন্মুক্ত পার্ক, খেলার মাঠ গড়ে তোলা, গণ শৌচাগার ও পাশাপাশি গভীর নলকূপ স্থাপন করতে চেষ্টা করবো।

মন্তব্য

comments


সর্বশেষ  
জনপ্রিয়