নড়িয়ায় পদ্মায় গোসল করতে গিয়ে ভাই-বোনের মৃত্যু

শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলায় পদ্মা নদীতে গোসল করতে নেমে দুই ভাই-বোন মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার নওপাড়ায় পদ্মা নদীতে গোসল করতে গিয়ে তারা নিখোজ হয়। রাত সাড়ে ৮টার দিকে ডুবুরিরা তাদের লাশ উদ্ধার করে।

নড়িয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মঞ্জুরুল হক আকন্দ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহত আপন দুই ভাই-বোন শরীফ বেপারী (১৭) ও মাহফুজা আয়শার (৯)। তারা নওপাড়া ইউনিয়নের নওপাড়া গ্রামের আব্দুল হক ব্যাপারীর ছেলে-মেয়ে। শরীফ ঢাকা বিএম কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ও মাহফুজা মদিনানগর দাখিল মাদরাসার তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী।

আব্দুল হক ব্যাপারী জানান, ১৯৯০ সাল থেকে পরিবার নিয়ে ঢাকার মিরপুর-১১ মদিনানগর এলাকায় থাকেন। তার গ্রামের বাড়ি শরীয়তপুরের নওপাড়ায়। তিনি একজন সিএনজি চালক। তার দুই ছেলে এক মেয়ে। ঈদ পালন করতে গত বুধবার তার মেয়ে মাহফুজা ও শনিবার ছেলে শরীফ গ্রামের বাড়ি নওপাড়া আসে।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে শরীফ ও মাহফুজা পদ্মা নদীতে গোসল করতে যায়। নদীতে সাঁতার কাটতে কাটতে গভীর পানিতে তলিয়ে যায় শরীফ। ভাইকে বাঁচাতে নদীতে নেমে বোন মাহফুজাও পানিতে তলিয়ে যায়।

বিলাপ করতে করতে আব্দুল হক ব্যাপারী বলেন, গ্রামে এসে আদরের ছেলে-মেয়েকে হারালাম। আমার সব শেষ হয়ে গেল।

নওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রাশেদ আজগর সোহেল মুন্সী বলেন, নিখোঁজ হওয়ার পর নড়িয়া থানা পুলিশকে জানানো হয়। নারায়নগঞ্জ থেকে তিনজন ডুবুরি এনে কয়েক ঘণ্টা চেষ্টার পর রাত সাড়ে ৮টার দিকে নিখোঁজ দুজনকে উদ্ধার করে। নিহতদের জানাজা শেষে রাতেই নওপাড়ায় গ্রামে দাফন সম্পন্ন হবে।

সংবাদটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন
Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedInPrint this page

মন্তব্য

comments